আজঃ রবিবার ● ৮ই বৈশাখ ১৪৩১ ● ২১শে এপ্রিল ২০২৪ ● ১১ই শাওয়াল ১৪৪৫ ● বিকাল ৫:৪২
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

নামাজরত অবস্থায় ছাত্রের মৃত্যু

ফাইল ছবি

দেবরামপুর গ্রামের চাকলাদারবাড়ির ইভানের (২২) মৃত্যুর ঘটনাটি যুগান্তরকে এভাবে বর্ণনা করেন মোহাম্মদ আলী জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা শাফায়াত হোসেন।‘আসরের নামাজের দ্বিতীয় রাকাতে সিজদা থেকে ওঠে বসতে পারেনি হোসনে মোবারক ইভান। গোঙানির শব্দ শুনে সালাম ফিরিয়ে দেখি ইভান মসজিদে লুটিয়ে পড়ে আছে। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, ইভান নেই। মৃতদেহ ফিরিয়ে আনা হয় উপজেলার ইয়াকুবপুর ইউনিয়নের দেবরামপুরে।’

শুক্রবার সকাল ১০টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে বাবা আবুল হাসেমের কবরের পাশেই দাফন করা হয় ইভানকে।

ইভান দাগনভূঞা সরকারি ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজে বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

তিনি বলেন, শব্দ শুনে আমরা মনে করেছি, হয়তো বয়স্ক কেউ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ইভানকে দেখে সবাই হতবিহ্বল হয়ে পড়েন।

বৃহস্পতিবার আসরের নামাজে ইমামতি করেছিলেন মাওলানা শাফায়াত হোসেন। তিনি জানান, ইভান এ মসজিদে নিয়মিত নামাজ পড়তেন।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির কর্মকর্তা আবদুল কুদ্দুছ তার প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। তার মতে, ইভান শান্ত, ভদ্র, মেধাবী ও ধার্মিক। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

শুক্রবার সকাল ১০টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে বাবা আবুল হাসেমের কবরের পাশেই দাফন করা হয় ইভানকে। সূত্র-যুগান্তর

মুবার্তা/এস/ই/অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুকে লাইক দিন