আজঃ রবিবার ● ২রা আষাঢ় ১৪৩১ ● ১৬ই জুন ২০২৪ ● ৯ই জিলহজ্জ ১৪৪৫ ● বিকাল ৪:০০
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

কবিতা- “তুমি সেই নজরুল”

ফাইল ছবি

তুমি সেই নজরুল
          কেয়ন ইমরান
বাংলার বিদ্রোহী বুলবুল-
সে তো নজরুল!
রয়েছো মোদের অন্তরে,
বাংলা তোমাকে বরে।
তুমি মহাকাশ ভেদি,
অত্যাচারীর মস্তক ছেদি,
বক্ষে হেনেছিলে শূল।
তুমি সেই নজরুল!
তোমার নেই জাতি-ধর্ম,
রচেছো মানবের তরে বর্ম।
মানুষ বলে দিয়েছো ঠাঁই,
সকল জাতিরে বলেছো ভাই।
সকলের দুঃখে অধীর আকুল।
প্রতিবাদী তুমি সেই নজরুল!
তুমি মানবের হিতে
করেছো প্রতিবাদ মসিতে।
করেছো কত কারাবরণ,
ছিনিয়ে এনেছো অরুণ।
বাঙালির আশার ফুল-
তুমি সেই নজরুল!
অত্যাচারীর জুলুম করেছো প্রতিহত,
তব লেখনীর ধারে শত।
ভেঙ্গেছো ভয়-আগল-আদাড়,
দাবিয়ে দিয়েছো শত্রুর বাড়।
জাতির কাছে তুমি অতুল।
বিদ্রোহী তুমি সেই নজরুল!
পারেনি থামাতে তোমার
বদ্ধ শিকল লোহার।
রাখতে পারেনি আটকিয়ে,
ধরেছো ঝাণ্ডা উঁচিয়ে।
অত্যাচারীর তরে বহ্নিফুল-
তুমি সেই নজরুল!
তুমি শৃঙ্খলহীন মুক্ত বিহঙ্গ,
সর্বময় তরুণকে দিয়েছো সঙ্গ।
জুগিয়েছো শক্তি- ভাঙ্গতে পাহাড়,
অত্যাচারীর প্রাসাদ করতে উজাড়।
গভীর অরণ্যের তুমি বুনোফুল।
বাঁধনহারা তুমি সেই নজরুল!
তুমি সুরের পাখি,
সাথী জনমের দুখী।
গেয়েছো বিদ্রোহের গান,
করেছো শত্রুর অবসান।
খাঁটি বাঙালির কুল-
তুমি সেই নজরুল!
তুমি উড়িয়েছো বিজয়ের নিশান,
বাজিয়েছো ধাতার মরণ বিষাণ।
প্রলয় হেনেছো ঐ অট্টালিকায়,
পুড়িয়েছো তব মসির শিখায়।
করেছো ধাতার পরিকল্পনা অপ্রতুল।
রুদ্ররুপী তুমি সেই নজরুল!
তুমি মানব প্রেমী,
বিধাতায় তব স্বামী,
গেয়েছো এই জয়গান।
বলেছো মানব মহিয়ান।
দুর্বলের সবল মুকুল-
তুমি সেই নজরুল!
তুমি এক দক্ষ সেনা,
বাজিয়েছো বিষের বাঁশী, অগ্নিবীণা।
এনেছো সন্ধ্যা, জ্বালিয়েছো প্রলয়শিখা,
দুর্দিনের যাত্রী তুমি সখা।
জাতির তরে রুদ্র-মঙ্গল।
সাম্যবাদী তুমি সেই নজরুল!
সারাবিশ্ব হোক নজরুলের আলয়,
নজরুল না হোক বিলয়।
ধূমকেতুর যুগবাণী, চোখের চাঁতক,
সর্বহারা, ছায়ানটের তুখড় কথক।
হৃদে ফুটুক হয়ে গীতিশতদল।
আমাদের মৃত্যুক্ষুধার সেই নজরুল!

কেয়ন ইমরান, কবি ও লেখক- মুক্তি বার্তা

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন