আজঃ বৃহস্পতিবার ● ৩০শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ● ১৩ই জুন ২০২৪ ● ৬ই জিলহজ্জ ১৪৪৫ ● রাত ৯:৫৪
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

তালাকের তিনদিন পর ফিল্মি স্টাইলে স্বামীর বাড়িতে লুটপাট

ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্কঃ তালাকের তিনদিন পর ফিল্মি স্টাইলে দলবল নিয়ে সাবেক স্বামীর বাড়িতে হাজির হয়েছেন মাছুরা খাতুন নামে এক নারী। ঘরের তালা ভেঙে চালিয়েছেন লুটপাটও। পরে গ্রামবাসীর বাধার মুখে পালিয়ে যান তিনি।

শুক্রবার বিকেলে ওই উপজেলার পরানদহা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মাছুরা খাতুন দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়া গ্রামের নুর আলী সরদারের মেয়ে।

জানা গেছে, মাছুরা খাতুনকে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন পরানদহা গ্রামের আব্দুল খালেক সরদারের ছেলে আলম হোসেন। তবে আচরণ ভালো না হওয়ায় ২৫ আগস্ট তাকে আদালতের মাধ্যমে তালাক দেন আলম। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে শুক্রবার বিকেলে বেস্ট টিম সাতক্ষীরার অ্যাডমিন মোস্তাফিজুর রহমান, তার স্ত্রী শাহনেওয়াজ পারভীন মিলি ও কুলিয়ার সাবেক মেম্বার মোশারাফ হোসেনকে নিয়ে আলমের বাড়িতে হামলা চালান মাছুরা খাতুন। এরপর ঘরের তালা ভেঙে মূল্যবান কাগজপত্র, জমির দলিল ও নগদ টাকা লুট করেন।

ভুক্তভোগী আলম হোসেন বলেন, ইউপি মেম্বার ও গ্রামের গণ্যমান্যদের উপস্থিতিতে সালিসের মাধ্যমে আমি মাছুরাকে তালাক দিয়েছি। এরপরই সে আমার ঘরে লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় আমি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি।

বেস্ট টিম সাতক্ষীরার অ্যাডমিন মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ওই ছেলে তার স্ত্রীকে তালাক দিয়েছে এটা ঠিক। তালাক হওয়ার পরও তিন মাস ১০ দিন ওই মেয়ে স্বামীর বাড়িতে থাকার অধিকার রাখে।

এ বিষয়ে মাছুরা খাতুনের সঙ্গে একাধিকবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি।

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন