আজঃ রবিবার ● ৮ই বৈশাখ ১৪৩১ ● ২১শে এপ্রিল ২০২৪ ● ১১ই শাওয়াল ১৪৪৫ ● দুপুর ২:৫২
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

কক্সবাজারের শরণার্থী ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের একটি প্রতিনিধি দল ভাসানচর আশ্রয়ন প্রকল্প পরিদর্শনে গেলেন

ফাইল ছবি

কায়সার হামিদ মানিক, কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ কক্সবাজারের শরণার্থী ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের একটি প্রতিনিধি দল ভাসানচর আশ্রয়ন প্রকল্প পরিদর্শনে গেলেন আজ (৫ সেপ্টেম্বর, শনিবার)। ভোরে দু’টি বাসে করে সেনা বাহিনীর তত্ত্ববধানে একটি রোহিঙ্গা প্রতিনিধি দলটি উখিয়ার ট্রানজিট ক্যাম্প থেকে যাত্রা শুরু করেন।
সকালে তাদের চট্টগ্রামে পৌঁছার কথা। সেখান থেকে  বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর তত্ত্ববধানে জলযানে করে যাত্রা শুরু করবেন ভাসানচরে। ভাসানচরে কী ধরণের সুযোগ ‍সুবিধা গড়ে তোলা হয়েছে বা দ্বীপটি বসবাসের জন্য কেমন- তা নিজেদের চোখে দেখবেন প্রতিনিধি দলটির রোহিঙ্গা নেতারা।
বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোঃ শামসুদ্দোজা জানিয়েছেন, প্রতিটি ক্যাম্প থেকে নির্বাচিত প্রায় ৪০ জন রোহিঙ্গা নেতা রয়েছেন  প্রতিনিধি দলে । আগামী ৮ সেপ্টেম্বর ভাসানচর থেকে  তাদের কক্সবাজার শরণার্থী ক্যাম্পে ফিরে আসার কথা রয়েছে।
কক্সবাজারের জেলা  প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন জানিয়েছেন, ভাসানচর সম্পর্কে রোহিঙ্গাদের মাঝে ধারণা দিতে এই “গো এন্ড সি” ভিজিট। কক্সবাজারের ঘনবসতিপূর্ণ শরণার্থী শিবির থেকে প্রায় এক লাখ রোহিঙ্গাকে বঙ্গোপসাগরের মোহনায় জেগে ওঠা ভাসানচর  দ্বীপে অস্থায়ীভাবে পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।
জোয়ার ও জলোচ্ছ্বাস থেকে সেখানকার ৪০ বর্গকিলোমিটার এলাকা রক্ষা করতে ১৩ কিলোমিটার দীর্ঘ বাঁধ এবং এক লাখ রোহিঙ্গা বসবাসের উপযোগী ১২০টি গুচ্ছগ্রামের অবকাঠামো তৈরি করা হয়েছে।
মালয়েশিয়া যেতে ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসা তিন শতাধিক রোহিঙ্গাকে সমুদ্র থেকে উদ্ধার করে ইতোমধ্যে ভাসানচরে নিয়ে আশ্রয় দিয়েছে সরকার। সফরকারী রোহিঙ্গা প্রতিনিধি দলটি ওইসব রোহিঙ্গাদের সাথেও কথা বলবেন এবং তাদের জীবন-মান পর্যবেক্ষণ করবেন।
ভাসানচর থেকে ফিরে কক্সবাজারের ক্যাম্পে আশ্রয়ে থাকা রোহিঙ্গাদের ভাসানচর আশ্রয়ন প্রকল্প সম্পর্কে ধারণা দেবেন প্রতিনিধি দলের রোহিঙ্গা নেতারা। প্রতিনিধি দলে  ২ জন নারী সদস্যও রয়েছেন।
মুবার্তা/এস/ই/কায়সার

ফেসবুকে লাইক দিন