আজঃ মঙ্গলবার ● ২৮শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ● ১১ই জুন ২০২৪ ● ৩ জিলহজ্জ ১৪৪৫ ● রাত ৩:৫৭
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ

ফাইল ছবি

রাহাদ সুমন, বানারীপাাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ বরিশালে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। এসময় অভিযোগ প্রামাণ না হওয়ায় গৃহবধূর শ্বশুর ও দেবরকে খালাস দেয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আদালতের বিচারক আবু শামীম আজাদ আসামির উপস্থিতিতে এই দণ্ডাদেশ দিয়েছেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মনির হোসেন বরিশালের হিজলা উপজেলার বাউশিয়া গ্রামের বাসিন্দা। রায় ঘোষণার পরে তাকে পুলিশ প্রহরায় বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফয়জুল হক ফয়েজ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ২০১৩ সালের ৬ জানুয়ারি মনির যৌতুকের দাবিতে নিজ বাড়িতে স্ত্রী মাকসুদা বেগমকে হত্যা করেন। এরপর মাকসুদা বেগমের ভাই অলিউদ্দিন বাদী হয়ে ৭ জানুয়ারি হিজলা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দিতে না পারায় কিল ঘুষি মেরে মাকসুদা বেগমকে হত্যার কথা উল্লেখ করা হয়। মামলায় মনির হোসেন ছাড়াও শ্বশুর শফী রাঢ়ী, শাশুড়ি রাশিদা বেগম ও দেবর নাসির রাঢ়ীকে আসামি করা হয়। এদের মধ্যে রাশিদা বেগম মারা গেছেন।

এ মামলায় ২০১৩ সালের ১৯ মে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। মামলায় ১৪ জনের সাক্ষ্য শেষে আদালতের কাছে স্বামী মনির হোসেন দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় তাকে মৃত্যুদণ্ড এবং অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় শ্বশুর ও দেবরকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন