আজঃ রবিবার ● ২রা আষাঢ় ১৪৩১ ● ১৬ই জুন ২০২৪ ● ৯ই জিলহজ্জ ১৪৪৫ ● বিকাল ৩:৫১
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

ধর্ষণে অবৈধ সন্তান প্রসব, মানসিক বিকৃতি অতঃপর খালে তরুণীর ভাসমান লাশ!

ফাইল ছবি

রাহাদ সুমন, বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ বরিশালের বাবুগঞ্জে খালে ভাসমান অবস্থায় মাসুদা আক্তার (২২) নামের এক হতভাগিনী তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

৭ অক্টোবর বুধবার বেলা ১১টার দিকে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের রহমতপুর ব্রিজের নিচে খালে তার মৃতদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে বিমানবন্দর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহত মাসুদা আক্তার বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের পশ্চিম পাংশা গ্রামের মালেক সরদারের মেয়ে। সে কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল বলে জানিয়েছে তার পরিবার। নিহতের বাবা দিনমজুর মালেক সরদার বলেন, ‘প্রায় ৫-৬ বছর আগে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্থানীয় এক ছেলে মাসুদাকে ধর্ষণ করলে সে গর্ভবতী হয় এবং একটি সন্তান জন্ম দেয়। এদিকে সেই লম্পট ছেলে মাসুদা ও তার সন্তানের পিতৃত্ব অস্বীকার করে পালিয়ে বিদেশে চলে যায়। এ নিয়ে আদালতে মামলা করেও কোনো সুরাহা না হওয়ায় ধীরে ধীরে মানসিক ভারসাম্য হারাতে থাকে মাসুদা আক্তার।’

বিমানবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস.এম জাহিদ বিন আলম জানান, রহমতপুর ব্রিজের নিচের খাল থেকে মাসুদা আক্তারের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাকে ধর্ষণের পরে হত্যা করা হয়েছে কিনা তা ময়না তদন্ত এবং ফরেনসিক রিপোর্ট পেলে জানা যাবে। তবে মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয় হওয়ার আগ পর্যন্ত অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে তদন্ত করবে পুলিশ।

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন