আজঃ শনিবার ● ২৫শে জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ● ৮ই জুন ২০২৪ ● ১লা জিলহজ্জ ১৪৪৫ ● সকাল ৭:১৯
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

বাড়িতে অভিযানে সাংসদ হাজী সেলিমকে খুঁজে পাননি র‍্যাব

ফাইল ছবি

মুক্তিবার্তা  নিউজ ডেস্কঃ

সোমবার (২৬ অক্টোবর) বেলা ১২টা থেকে রাত পর্যন্ত সাংসদ হাজী সেলিমের বাড়িতে টানা কয়েক ঘণ্টা শ্বাসরুদ্ধ অভিযান চালানো হয়। আগের রাতে ধানমণ্ডিতে নৌবাহিনীর একজন কর্মকর্তাকে ‘মারধরের’ জেরে সোমবার দুপুরে সোয়ারি ঘাটের দেবী দাস লেনে হাজী সেলিমের বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব।

অভিযানে লাইসেন্সহীন দুটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, একটি এয়ারগান, ৩৭টি ওয়াকিটকি, একটি হাতকড়া এবং বিদেশি মদ ও বিয়ার পাওয়ার কথা জানিয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তারা।

ওই বাসা থেকে ইরফান ও তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ জাহিদকে গ্রেপ্তার করে মদ্যপান ও ওয়াকিটকি ব্যবহারের জন্য এক বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযান শেষে রাত ৮টা ১০ মিনিটের দিকে ওই বাড়ি থেকে ইরফান ও জাহিদকে বের করেন র‌্যাব সদস্যরা।

এ সময় র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, ইরফান ও জাহিদকে টিকাটুলিতে র‌্যাব-৩ এর কার্যালয়ে নেওয়া হচ্ছে। সেখান থেকে তাদের কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

সারওয়ার আলম এ সময় চকবাজারের আশিক টাওয়ারে ইরফানের ‘নির্যাতন কেন্দ্রের’ সন্ধান পাওয়ার কথা জানান। পুরান ঢাকার চকবাজারের একটি বহুতল ভবনের ছাদের একটি কক্ষ থেকে হাতকড়া, ছোরাসহ কিছু জিনিস উদ্ধারের পর র‌্যাব জানায়, এই কক্ষকে ‘নির্যাতন কেন্দ্র’ হিসেবে ব্যবহার করতেন সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম।

আর অভিযানকালে গোটা এলাকা ঘিরে রাখে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর অসংখ্য সদস্য আর গণমাধ্যমকর্মীরা। গণমাধ্যমে লাইভ প্রচারও হয় র‌্যাবের অভিযান। তবে এসব ঘটনা যার বাড়িতে ঘটছে সেই হাজী সেলিমকেই খুঁজে পায়নি র‌্যাব।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, অভিযান শুরুর আগেই তিনি চিকিৎসকের কাছে গেছেন।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, হাজী সেলিম বাড়িতে নেই। অভিযানের আগেই তিনি তার স্ত্রীসহ ডাক্তারখানায় গেছেন বলে জানা গেছে।

তবে কোথায়, কোন চিকিৎসকের কাছে হাজী সেলিম চিকিৎসা নিতে গেছেন, তা জানাতে পারেননি র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা। এ ব্যাপারে জানতে হাজী সেলিমের মোবাইলে একাধিকবার ফোন করলেও সাড়া দেননি তিনি।

হাজী সেলিম বর্তমানে ওই এলাকার সংসদ সদস্য। আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগরের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক হাজী সেলিম এর আগেও দুই দফায় পুরান ঢাকার এই এলাকার সংসদ সদস্য ছিলেন। এরমধ্যে ২০১৪ সালে বিদ্রোহী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনকে হারিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন