আজঃ বুধবার ● ১লা জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ● ১৫ই মে ২০২৪ ● ৬ই জিলক্বদ ১৪৪৫ ● সকাল ৬:৩৮
শিরোনাম

Edit By: মুবা/আব্দুল আলীম

কেয়ন ইমরানের কবিতা “মুক্তি”

কবি ও লেখক, কেয়ন ইমরান- ফাইল ফটো

মুক্তি
       কেয়ন ইমরান
স্বধীনতা মানে পূর্ণতা, মুক্তি,
অসহায়ের তরে আলোর জ্যোতি।
যেন মুক্তা ভরা শুক্তি।
ভয়হীন খোলা দহলিজার বাতি।
আমরা বাঙালি মুক্তি পাগল,
বদ্ধ থাকতে চাই না।
বাঁধা হোক যত আগল
রুখতে কেউ পারবে না।
দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে মোরা
শত্রু বাহিনীকে করেছি পরাজিত।
রচনা করতে সুখের ডেরা
কখনও করিনি মাথা নত।
এ কেমন পেয়েছি স্বাধীনতা!
বন্দি খাঁচায় পোষহীন পাখি,
কারো সাথে নেই মিতা।
জীবনকে হাতের মুঠোয় রাখি।
সত্য গেছে উধাও হয়ে,
চাটার দল এসে জড়ো।
নদীর ধারা যাচ্ছে বয়ে
হোক না নদী ভরো।
সোনার দেশে সোনা ফলে।
তবু দেশে বড় অভাব।
দিন দিন যাচ্ছে রসাতলে,
একাত্তরের ঘাতকের মতো স্বভাব।
ও মুজিব, তব বাংলায়
সত্যিই চোরের খনিতে পূর্ণ।
এখন ডাকাতও দেখা যায়,
তব সম্মান করেছে চূর্ণ।
কেন বাঙালির তরে এনেছিলে
স্বাধীনতা নামক মুক্তির সনদ?
এ জাতির আছে পিলে!
শুধু সৃষ্টি করে গলদ।
মুক্তির তরে ছুটিলে মুজিব,
দিলে শেষ করে জীবন।
জাতির তরে হয়ে শিব,
অবশেষে পেয়েছ বিভৎস মরণ।
তবুও বাংলা মুক্তি পায়নি
মুজরিমের কালো হাত থেকে।
নিরব হয়ে আঘাত হানি
করছে শেষ এই বাংলাকে।
আবাল-বৃদ্ধা-বণিতা আজ
হয়েছে মুক্তির তরে পাগল,
ধর্ষণ-খুন-লুণ্ঠন-বাজ
অসহায় চাই পবিত্র বাদল।
মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন