আজঃ রবিবার ● ২রা আষাঢ় ১৪৩১ ● ১৬ই জুন ২০২৪ ● ৯ই জিলহজ্জ ১৪৪৫ ● বিকাল ৪:২০
শিরোনাম

By মুক্তি বার্তা

যশোরের গুণী লেখক ছিলেন এম আহমদ আলী সাহিত্যরত্ন

ফাইল ছবি

সাজেদ রহমান: গ্রামে বসে সাহিত্য চার্চা করেন, এমন বহু মনীষী ছিলেন আমাদের যশোরে। তাঁদের একজন চৌগাছার এম আহমদ আলী সাহিত্যরত্ন। তাকে নিয়ে লেখা বই ” নিভৃতচারী”।

চৌগাছার নামকরণ নিয়ে তিনি একটি কবিতা লিখেছেন। তাঁর কবিতা এ রকম-

‘‘ তারিনীবাসের উত্তরপাশের

বৃদ্ধাবটের গাছ,

ইছাপুরের দেওয়ানবাড়ির

উত্তর রাজে আরেক বটরাজ।
কয়ার পাড়ায় বর্গীতলা-বুড়ি বটগাছ
গোবরডাঙ্গা সীমা আজও সুউচ্চ বিরাজ।
দক্ষিণে হুদা-চৌগাছা রাহে
দীঘলসিঙ্গার নদীর ধার
এ চার বটবৃক্ষ মিলে নাম হলো চৌগাছা।’’

অল্প কথায় তাঁর মতো চৌগাছার ইতিহাস আর কেউ লিখতে পেরেছেন কিনা আমার সন্দেহ।

“নিভৃতচারী” বইটি পেলাম গত সপ্তাহে। বইটির সৌজন্য কপি যশোরে এসে আমাকে দিয়েছেন এম আহমদ আলীর পুত্র কপোতাক্ষ গেজেটের সম্পাদক, লেখক, কলামিস্ট ও গবেষক এম মুজাহিদ আলী এবং নাতি এম হাসান মাহমুদ। এম হাসান মাহমুদের সম্পাদনায় রচিত “নিভৃতচারী” বইটি পেয়ে আমি খুশি এবং অনুপ্রাণিত। গ্রাম বাংলায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা এসব মনীষীদের খুঁজে বের করার দায়িত্ব আমাদের। অথচ আমরা পারিনা। এর ব্যর্থতা আমাদের।

সংগ্রহঃ ফেসবুক পাতা (সাজেদ রহমান)

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন