আজঃ মঙ্গলবার ● ১২ই আশ্বিন ১৪২৯ ● ২৭শে সেপ্টেম্বর ২০২২ ● ৩০শে সফর ১৪৪৪ ● সকাল ৭:১১
শিরোনাম

By: মুক্তি বার্তা

ইবিতে শিবির সন্দেহে দুই শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের মারধর রানা আহম্মেদ অভি, ইবি।

ফাইল ছবি

রানা আহম্মেদঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) শিবির সন্দেহ ধর্মতত্ত্ব অনুষদের দুই শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে ছাত্রলীগের কর্মীরা। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) কলা অনুষদের ডিন ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মারধর শুরু হলে শিক্ষার্থীদের একজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা অভিমুখে পালিয়ে যায় অন্যজনকে মারতে মারতে শিক্ষক শিক্ষার্থী সংস্কৃতি সেন্টার (টিএসসিসি) সামনে গিয়ে মারধর থামে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বেলা দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদ ভবনের ডিন অফিসের সামনে প্রায় অর্ধশতাধিক ছাত্রলীগ কর্মীরা অবস্থান নেয়। এসময় সেখানে অবস্থান করা দুই শিক্ষার্থীকে নানা প্রশ্ন করা হয়। এ পর্যায়ে শিবির সন্দেহে তাদের উভয়ে মারধর করা হয়েছে।
এ সময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা শিবির ধর জবাই করা সহ বিভিন্ন শ্লোগান দিচ্ছিল। ছাত্রলীগ নেতারা তাদের মারধরের সময় বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্ত্র নিয়ে সশস্ত্র অবস্থান করছিল শিবির এ ধারণা করে ছাত্রলীগ নেতা করা তাদের মারধর করেছে। ডিন অফিসের সামনে থেকে তাদের তাড়া করতে করতে আল-কোরআন বিভাগ, অনুষদ ভবন, বটতল ও প্রশাসন ভবনে দৌড়ে পালিয়েছে  শিবির এ সন্দেহে খুঁজতে ছাত্রলীগ অভিযান করে থাকে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয় বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রশিবিরের পদধারী নেতাকর্মী নৈরাজ্য সৃষ্টির লক্ষ্যে ঘোরাফেরা করছিল। সে খবর ছাত্রলীগের কর্মীরা ও সাধারণ শিক্ষার্থী জানতে পেরে তাদের চড় থাপ্পড় মেরেছে বলে আমি জেনেছি। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নৈরাজ্য বিরোধী সিরিজ মিছিল মিটিং চলাকালীন তারা অস্ত্র নিয়ে সশস্ত্র অবস্থান করেছে।
তিনি আরো বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মাটিতে কোন ছাত্রশিবির থাকতে পারবে না। আমাদের কাছে পদধারীদের তথ্য আছে। ছাত্রলীগ ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা যেখানে শিবির পাবে সেখানেই তাদের প্রতিহত করবে বলে জানান তিনি।

ফেসবুকে লাইক দিন