আজঃ বৃহস্পতিবার ● ১৫ই মাঘ ১৪২৭ ● ২৮শে জানুয়ারি ২০২১ ● ১৪ই জমাদিউস-সানি ১৪৪২ ● সকাল ১০:৩১
শিরোনাম

By: মুক্তি বার্তা

সন্ধ্যা নদীর ভাঙন রোধে দীর্ঘমেয়াদী ও পরিকল্পিত উদ্যোগ নেওয়া হবে..পানি সম্পদ প্রতি মন্ত্রী কর্নেল জাহিদ ফারুক শামিম

ফাইল ছবি

রাহাদ সুমন,বিশেষ প্রতিনিধিঃ পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামিম বরিশালের বানারীপাড়ায় সন্ধ্যা নদীর ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। এসময় তিনি বলেন ভাঙনের হাত থেকে বানারীপাড়া ও উজিরপুরের বিস্তির্ণ জনপদকে রক্ষা করতে দীর্ঘমেয়াদী, সুদূর প্রসারী ও পরিকল্পিত কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।
তিনি এসময় সন্ধ্যা নদীর ভাঙন কবলিত বানারীপাড়ার বাইশারী ইউনিয়নের উত্তর নাজিরপুর,উত্তরকুল, বাংলাবাজার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের নলশ্রী, চাখার ইউনিয়নের চাউলাকাঠি এ রব মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কালিরবাজার এলাকা এবং সন্ধ্যা নদীর শাখা কঁচা নদীর ভাঙন কবলিত উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়নের রাজাপুর বেড়িবাঁধ রক্ষায়  প্রাথমিকভাবে জরুরী ভিত্তিতে জিও ব্যাগ ফেলার কথা জানান। শুক্রবার সকাল ৯টায় তিনি স্পিডবোট নিয়ে ভাঙন কবলিত
এসব এলাকা পরিদর্শন করেন। পরে তিনি বানারীপাড়া পৌর শহরে মডেল মসজিদ ও ইসলামি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের জন্য প্রস্তাবিত স্থান ও আওয়ামী লীগ কার্যালয় পরিদর্শন করেন।
এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ শাহে আলম,বানারীপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম ফারুক,টরেন্টো ইউনিভার্সিটির প্রফেসর মিনহাজ,
,পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত মহা পরিচালক হাবিবুর রহমান,নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক রঞ্জন দাস, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শফিউদ্দিন, বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিপন কুমার সাহা,উজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণতি বিশ্বাস, আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম শাহিন,বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুল হক খান মামুন,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল হুদা, প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়াও বানারীপাড়ার ওসি মোঃ হেলাল উদ্দিন, উজিরপুরের ওসি জিয়াউল আহসান, বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহমুদ হোসেন মাখন, আওয়ামী লীগ নেতা ডাঃ খোরশেদ আলম সেলিম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সুব্রত লাল কুন্ডু, সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম, উজিরপুরের সাতলা ইউপি চেয়ারম্যান খায়রুল বাশার লিটন,বানারীপাড়ার উপজেলা যুবলীগ নেতা মুন্তাকিম লস্কর কায়েস, সুমম রায় সুমন, মশিউর রহমান সুমন, স্বপন মাঝি, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রুহুল আমিন রাসেল মাল,সম্পাদক সজল চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসী ভাঙন রোধে নদী থেকে বালি উত্তোলন বন্ধ ও ড্রেজিংসহ পরিকল্পিত কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।
মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন