আজঃ সোমবার ● ১০ই ফাল্গুন ১৪২৭ ● ২২শে ফেব্রুয়ারি ২০২১ ● ৯ই রজব ১৪৪২ ● দুপুর ১:১৩
শিরোনাম

By: মুক্তি বার্তা

কবিতা- চোর

ফাইল ছবি

চোর
কেয়ন ইমরান
রাত জাগা পাখির ন্যায় জেগে থাকে,
পাহারা দেয় মালিকের ঘুমের।
সারা নিশি সাবধানে-সন্তর্পণে,
মৃত্যু ভয় নেই তার
ভয় শুধু মালিকের।
প্রভু ভক্ত-
যদি একবার চিল্লায় জীবন বাঁচানো দায়।
পরিচয় কি তোর?
ভয়ে ভয়ে কাঁপা পায়ে দেয় দৌড়।
শুকিয়ে গলা ধূলো, দিতে গিয়ে পাহারা।
বাগানের মশা এসে পিঠে,
কেউ শোনায় গান কানে।
ব্যাটা তবুও হয়ে শিকারী
ওঁত পেতে থাকে।
আসুক ঘুম-
মন্ত্র যঁপে বারে বারে পাপের কল্যাণে।
আসবে কি ভোর?
ঘুরে যাবে কোন দিন জীবনের মোড়।
শীত আর বর্ষায় দুই কালে শান্তি।
তৃপ্ত মনে ঘুমায় মালিক।
সুখ এসে ধরা দেয়,
আপনার বাহুতে আসে বল।
যদি কাঁদে বাচ্চা
মালিক উতলা-
বাতি জ্বলে, গোয়ালে মারে হাঁক হাম্বা।
জাওনা নেই কি?
কথা শুনে দাঁড়াতে- পেল কাঁটার আঁচড়।
আপনার ঘরের শিশুর ঘুম না পাড়িয়ে
দোয়া করে মালিকের সন্তান
ঘুমিয়ে থাক দিব্যি আরামে।
সাথে সাথে ঘুমাক মালিক
রাত হোক অন্ত।
মুক্ত মনে-
অধির আগ্রহের হোক অবসান নিরব পরিবেশ।
গহণা আছে কি?
এদিক-ওদিক করে শুধু খোঁজাখুঁজির তোড়।
পূর্ণিমা লাগে না ভালো অমাবস্যা চাই।
না শুনে দুঃখের বিলাপ
সন্ধান করে গেরোস্তের সংসার।
যদি মেলে কোন দানা
মিটবে তাতে ভূখ।
মস্ত অপরাধী-
লোকে দেয় অপবাদ, করে শাস্তি ভোগ।
আছে কি শরম?
পেটের দায়ে সব ভোলে রাতের ভোদড়।
সন্তানের চোখে বাবা, স্ত্রীর চোখে স্বামী,
সমাজের চোখে একজন চোর।
ওর আলয়ে রোদ-বৃষ্টি
সহজে করতে পারে প্রবেশ,
গগণ দেখায় লীলা।
সমাজের খেলনা-
তীর্থের মতো চেয়ে থাকে সুযোগ সন্ধানে।
স্বেচ্ছায় কি চুরি?
বারে বার সমাজ দেয় ওকে পোড়।
চুরি করলেও ভাবতে থাকে, কষ্ট লাগে,
সন্তান কি দেবে পরিচয়!
সমাজ বলবে চোরের সন্তান!
বাঁচার তরে সান্ত্বনা দেয়,
আগামীর ভাবনায় কাটে।
দিন কঠিন-
চাহিদা পূরণে ব্যর্থ, বাঁচার তাগিদে চোর।
হবে কি শেষ?
গতি স্থির হলে মাটিতে দেবে গোড়।
মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন