আজঃ বৃহস্পতিবার ● ৩ আষাঢ় ১৪২৮ ● ১৭ই জুন ২০২১ ● ৬ই জিলক্বদ ১৪৪২ ● বিকাল ৫:৩২
শিরোনাম

By: মুক্তি বার্তা

চৌগাছায় প্রায় ৪ কোটি নগদ সহায়তা পাচ্ছে ৫৭ হাজার ৫১৩ পরিবার

চৌগাছা (যশোর) : যশোরের চৌগাছায় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার, ত্রাণ সহায়তা ও করোনায় কর্মহীন শ্রমিক ও কর্মজীবীদের বিশেষ সহায়তার প্রায় ৪ কোটি নগদ সহায়তা পাচ্ছে ৫৭ হাজার ৫১৩ পরিবার।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার ৪৬ হাজার ৭৩৫ জনের প্রত্যেককে ৪৫০ টাকা হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার দেয়া হবে ২ কোটি ১০ লাখ ৩০ হাজার ৭৩৫ টাকা। ১১ টি ইউনিয়নের ৫ হাজার ৫০০ জনকে ৫০০ টাকা করে নগদ ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া ৫ হাজার ২৭৮ জন পাবেন ২ হাজার ৫১৫ টাকা করে ১ কোটি ৩২ লাখ ৭৪ হাজার ১৭০ টাকা।

ইতোমধ্যে নিজেদের মোবাইল ফোনে বিকাশ, রকেট বা নগদের মাধ্যমে নগদ সহায়তার ২ হাজার ৫১৫ টাকা করে পেতে শুরু করেছেন কর্মহীন মানুষ। নিজের মোবাইল ফোনে টাকা পাওয়ার এসএমএস দেখিয়ে ভাড়ায় প্রাইভেট কার চালক ওহিদুল ইসলাম বলেন, গত বছরের মত এবারও করোনাকালীন সময়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছিলাম। তবে এই নগদ সহায়তা পেয়ে স্বস্তিবোধ করছি। আমার মত যারা গত বছর নগদ সহায়তা পেয়েছিলেন এবারও তারা সহায়তার টাকা পাচ্ছেন। এবছরও এভাবে টাকা পাবো এটা ভাবতেই পারিনি।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইশতিয়াক আহমেদ জানান, অন্যান্য বছর ঈদে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার হিসেবে দরিদ্র মানুষদের ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে দশ কেজি করে চাল দেয়া হতো। চলতি বছর সেই ভিজিএফ হিসেবে জনপ্রতি ৪৫০ টাকা করে নগদ দেয়া হবে। উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার ৪৬ হাজার ৭৩৫ জন ভিজিএফ’র ৪৫০ টাকা করে পাবেন। এছাড়াও উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নের প্রত্যেক ইউনিয়নের ৫০০ জন নগদ ৫০০ টাকা করে ত্রাণ সহায়তা পাবেন। এছাড়া করোনায় কর্মহীন ৫ হাজার ২৭৮ জন তাদের মোবাইল ফোনে ২৫১৫ টাকা করে নগদ সহায়তা পাচ্ছেন। গত রবিবার প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর থেকে তালিকাভূক্তরা এই টাকা পেতে শুরু করেছেন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ঈদ উল ফিতরে উপজেলার ৪৬ হাজার ৭৩৫ জনকে দেয়া হবে ৪৫০ টাকা করে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার। চৌগাছা পৌরসভার ৩ হাজার ৮১ জন, ফুলসারা ইউনিয়নের ৫ হাজার ২২২, পাশাপোলে ৪ হাজার ২৮৯ জন, সিংহঝুলীতে ৩ হাজার ১১ জন, ধুলিয়ানীতে ৩ হাজার ১২১ জন, চৌগাছা সদরে ২ হাজার ৬৯০ জন, জগদীশপুরে ৩ হাজার ৫৮১ জন, পাতিবিলায় ৩ হাজার ১৪২ জন, হাকিমপুরে ৪ হাজার ৫০২ জন, স্বরুপদহে ৫ হাজার ৭০২ জন, নারায়নপুরে ৫ হাজার ৪২০ জন এবং সুখপুকুরিয়ায় ৬ হাজার ৫৫ জন এই ভিজিএফ’র ৪৫০ টাকা করে নগদ পাবেন।

এছাড়া প্রতিটি ইউনিয়নের ৫০০ জন করে পাবেন ত্রাণ সহায়তার ৫০০ করে নগদ টাকা। আর মোবাইল ফোনে ২ হাজার ৫১৫ টাকা করে পাচ্ছেন উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ৫ হাজার ২৭৮ জন। কর্মহীনদের নগদ ২ হাজার ৫১৫ টাকা সহায়তা পাবার কথা ছিল উপজেলার ৬ হাজার ৭৮৩ জনের। কিন্তু গত বছর তালিকা করার সময় অনেকের নিজের নামে মোবাইল সিম নম্বর না থাকাসহ নানা জটিলতার কারণে ১ হাজার ৫০৫ জন সে টাকা পাননি। পরে তাদের ত্রুটিগুলো সংশোধন করে পাঠানো হলেও তারা সহায়তার টাকা পাননি। এবছর তারা টাকা পাবেন কিনা সেটা নিশ্চিত করতে পারেননি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ।

তিনি বলেন, গত বছর পরে তালিকার ত্রুটি সংশোধন করে পাঠানো হয়েছিল। তবুও তারা টাকা পাননি বলে জানি। এবছর তারা পাবেন কিনা সেটা সঠিক বলতে পারছিনা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রকৌশলী এনামুল হক বলেন, ভিজিএফ এবং ত্রাণের নগদ টাকা যেন ভুক্তভোগীরা কোন জটিলতা ছাড়াই পেতে পারেন সেটি নিশ্চিত করা হবে। প্রয়োজনে একাধিক দিনে এই টাকা ট্যাগ অফিসারদের উপস্থিতিতে বিতরণ করা হবে। কোনভাবেই অবস্থা সম্পন্নরা যেন এই টাকা না পান সেটি নিশ্চিত করার জন্য জনপ্রতিনিধি এবং ট্যাগ অফিসারদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নগদ টাকা বিতরণে কোন অনিয়ম বা বিতর্ক যেন না হয় সংশ্লিষ্ট সবাইকে সে ব্যাপারে কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

মুবার্তা/এস/ই

ফেসবুকে লাইক দিন