আজঃ শনিবার ● ৭ই বৈশাখ ১৪৩১ ● ২০শে এপ্রিল ২০২৪ ● ৯ই শাওয়াল ১৪৪৫ ● রাত ৩:০৬
শিরোনাম

By: মুক্তি বার্তা

চৌগাছায় বহু আলোচিত হায়দার আলীর লাশ আদালতের নির্দেশে তিনমাস পর কবর থেকে উত্তোলন

ফাইল ছবি

চৌগাছা যশোর প্রতিনিধিঃ

যশোরের চৌগাছার আলোচিত সেই হায়দার আলীর লাশ তিন মাস পর কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার মাকাপুরের পারিবারিক কবরস্থান থেকে আদালতের নির্দেশে এ লাশ উত্তোলন করেছেন যশোরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

হায়দার আলীর বোন, ফূফাতো ভাই ও এলাকাবাসী জানান, মৃত হায়দার আলীর ৩ মেয়ে ও ৩ ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থ থাকার কারণে তার সম্পত্তি নিয়ে পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এতে হায়দার আলীকে বিভিন্নভাবে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করা হত। ঘটনা জানতে পেরে
মেঝো ছেলে লন্ডন প্রবাসী ব্যারিস্টার একেএম মর্তৃজা দেশে এসে পিতা হায়দার আলীকে নিজ হেফাজতে নিয়ে চিকিৎসা করছিলেন। এলাকাবাসীর দাবি, চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্বাভাবিকভাবে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে নিহতের মেঝো মেয়ে বিউটি বেগম জানান, ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসের ৯তারিখে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে হায়দার আলীর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর ১ মাস ৫দিন পর মৃতের স্ত্রী লতিফা হায়দার বাদী হয়ে যশোর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মেঝো ছেলে ব্যারিস্টার একেএম মর্তৃজাসহ মোট ১০জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে
মামলাটির চলমান তদন্ত ও আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী হায়দার আলীর লাশটি উত্তোলন করা হয়।

যশোর জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, “জেলা বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট স্যারের নির্দেশে মামলাটির তদন্তের জন্য এই লাশটি উত্তোলন করা হয়েছে। এরপর আদালতের নির্দেশে যা যা করা প্রয়োজন, তা করা হবে।”

ফেসবুকে লাইক দিন